শাওমি ও স্যামসাং ফোন হ্যাক করে কোটি টাকা উধাও!

প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর কাছে গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্যের সঙ্গে থাকে ক্রেডিট কার্ড নম্বরও। সুরক্ষা থাকলেও মাঝে মধ্যে তা চলে যায় হ্যাকারদের কাছে।

সম্প্রতি এমনই এক হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছে শাওমি ও স্যামসাং। যার মাধ্যমে হ্যাকাররা তথ্য নিয়ে প্রায় কোটি টাকা নিয়ে গেছে।

জাপানের টোকিওতে এক হ্যাকিং চ্যালেঞ্জ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেই এমন ঘটনা ঘটে।

ওই চ্যালেঞ্জে প্রথমেই সনি স্মার্ট নিয়ন্ত্রণ নেয় হ্যাকাররা। সেখান থেকে ১৫ হাজার মার্কিন ডলার লুফে নেয় তারা।

এরপর অ্যামাজন ইকো শো ৫ ডিভাইসে হানা দেয় হ্যাকাররা। অ্যামাজনের স্মার্ট স্পিকার হ্যাক করে প্রায় ৬০ হাজার মার্কিন ডলার পকেটে নেয় হ্যাকাররা।

তারপর দুটি স্যামসাং ডিভাইসে হানা দেওয়া হয়। এই ডিভাইস দুটি হলো স্যামসাং গ্যালাক্সি এস১০ এবং স্যামসাং কিউ৬০ স্মার্ট টিভি। এই দুই ডিভাইস থেকে ৪৫ হাজার মার্কিন ডলার জিতে নেয় তারা।

সব শেষে শাওমি মি৯ ফোন হ্যাক শুরু হয়। শাওমির এই ফোন হ্যাক করে ২০ হাজার মার্কিন ডলার পকেটে আসে হ্যাকারদের।

২০০৭ সাল থেকে প্রতি বছর এই হ্যাকিং চ্যালেঞ্জ অনুষ্ঠিত হয়। বছরে একবার এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। যে সব প্রতিযোগী সফলভাবে হ্যাকিং করতে পারেন সেই প্রতিযোগীদের জন্য থাকে আকর্ষণীয় পুরস্কার।

প্রায় সব প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো নিজেদের সার্ভারে ভুল ত্রুটি ধরিয়ে দেওয়ার জন্য বড় টাকা পুরস্কার দিয়ে থাকে।