এন্ড্রু কিশোরের জন্য আর্থিক সহায়তা চেয়ে প্রতারণা

ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বরেণ্য সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোর। এরই মধ্যে তিন সাইকেলে ১২টি কেমোথেরাপি দেওয়া হয়েছে। গত ২৬ নভেম্বর থেকে চতুর্থ সাইকেল শুরু হয়েছে।

ব্যয়বহুল এই চিকিৎসা করতে গিয়ে প্রয়োজন হচ্ছে মোটা অঙ্কের টাকা। আর এই সুযোগে আর্থিক সহায়তা চেয়ে প্রতারণা করছেন কিছু অসাধু ব্যক্তি। এন্ড্রু কিশোরের অসুস্থতা নিয়ে তাঁর জন্য আর্থিক সহায়তা চেয়ে কয়েকটি বিকাশ নম্বর ও ব্যাংক হিসাব নম্বর দেওয়া হচ্ছে, যা এন্ড্রু কিশোরের নয় বলে তাঁর ঘনিষ্ঠজন সংগীতশিল্পী মোমিন বিশ্বাস নিশ্চিত করেছেন।

মোমিন বিশ্বাস বলেন, ‘যাঁরা নিজে থেকে এন্ড্রু কিশোরের পাশে দাঁড়াতে চেয়েছেন এবং চান, তাঁরা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে থাকেন। পাবলিকলি আমরা কোনো অ্যাকাউন্ট নম্বর বা বিকাশ নম্বর দিয়ে সাহায্যের আবেদন করছি না। রাজশাহীর ঠিকানা দিয়ে যে বিকাশ নম্বরটি প্রকাশ করে সাহায্য চাওয়া হচ্ছে, এ বিষয়ে তিনি (এন্ড্রু কিশোর) বা তাঁর পরিবারের কোনো সম্পৃক্ততা নেই!’

এদিকে এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাসও দিয়েছেন মোমিন। তিনি এতে লিখেছেন, ‘অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে লক্ষ করা গেছে গতকাল থেকে আজ পর্যন্ত বেশ কয়েকজন ব্যক্তির ফেসবুক পোস্টে শ্রদ্ধেয় এন্ড্রু কিশোর দাদার অসুস্থতা নিয়ে তাঁর জন্য আর্থিক সহায়তা চেয়ে কয়েকটি বিকাশ নম্বর এবং (Andrew Kishor, Ac No: 13515170999 Dutch Bangla Bank, Rajshahi) নামে যে অ্যাকাউন্ট নম্বরটি দেখানো হয়েছে সেটি ভুল! উল্লেখ্য, এন্ড্রু কিশোর দাদার কোনো বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর নেই এবং প্রবাসীরা যে ফান্ডটি খুলেছেন (নিচের ছবির লিংকটি https://www.gofundme.com/f/andrew-kishore…), এর বাইরে কোনো ফান্ড খোলা হয়নি! এইমাত্র শ্রদ্ধেয় কিশোরদার সঙ্গে কথা বলার পর তিনি বিষয়টি আমাকে নিশ্চিত করেছেন! আশা করি, এ বিষয়ে কেউ বিভ্রান্ত হবেন না! উনার সুস্থতাই এ মুহূর্তে একমাত্র কাম্য আমাদের সবার! ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা সবার প্রতি।’

গত ৯ সেপ্টেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন এন্ড্রু কিশোর। তিনি হরমোনজনিত সমস্যায়ও ভুগছিলেন। এ কারণে তাঁর ওজন হ্রাসসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। সর্বশেষ গত ১৮ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুরে বায়োপসি রিপোর্টের ভিত্তিতে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, তিনি Non Hodgkin’s Disease (Lymphoma) ক্যানসারে আক্রান্ত! এরপর ডাক্তারদের জরুরি পরামর্শে তাঁর দ্রুত চিকিৎসা শুরু হয়! জানা গেছে, সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে কেমোথেরাপিসহ অন্যান্য চিকিৎসার জন্য প্রতি মাসে কিছুদিন হাসপাতালে থাকতে হচ্ছে। বাকি দিনগুলো সিঙ্গাপুরে ছোট একটি স্টুডিও অ্যাপার্টমেন্টে ভাড়া নিয়ে থাকছেন। সেখানে এন্ড্রু কিশোরের সঙ্গে তাঁর স্ত্রী রয়েছেন।

এন্ড্রু কিশোরের গাওয়া শ্রোতাপ্রিয় গানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি’, ‘আমার বুকের মধ্যখানে’, ‘সবাই তো ভালোবাসা চায়’, ‘বেদের মেয়ে জোছনা আমায় কথা দিয়েছে’, ‘তুমি আমার জীবন আমি তোমার জীবন’, ‘ভালো আছি ভালো থেকো’, ‘তুমি মোর জীবনের ভাবনা’ প্রভৃতি।