অমিতাভের একটি পরামর্শ মানতে পারিনি : রজনীকান্ত

ভারতের দক্ষিণী সুপারস্টার রজনীকান্ত ‘দরবার’ ছবি দিয়ে বলিউডে ফিরছেন। গতকাল সোমবার ইউটিউবে এ ছবির ট্রেইলার প্রকাশ করা হয়। ছবির গল্প এক পুলিশ কর্মকর্তাকে ঘিরে, যিনি কোনো নিয়মনীতির পরোয়া করেন না। ভিডিওতে দেখা যায়, রজনীকান্তের চরিত্রটি যেন পুলিশের নয়, খুনির।

গতকাল মুম্বাইয়ে ট্রেইলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বলিউডে কাজ করা নিয়ে বেশ কিছু মজার তথ্য দেন। বলেন, মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চন তাঁকে তিনটি পরামর্শ দিয়েছিলেন। অবশ্য একটি পালন করতে পারেননি।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই অনুষ্ঠানে কিংবদন্তি অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন প্রসঙ্গে রজনীকান্ত বলেন, ‘আমি অমিতাভ বচ্চনকে খুব সম্মান করি। একবার তিনি আমাকে তিনটি পরামর্শ দিয়েছিলেন—নিজের শরীরের যত্ন নেবে, কাজ চালিয়ে যাবে এবং কখনো রাজনীতিতে যোগ দেবে না। কিন্তু শেষ পরামর্শটি আমি এড়িয়ে গিয়েছি, যোগ দিয়েছি রাজনীতিতে।’

যা হোক, ট্রেইলারে অবশ্য কিঞ্চিৎ গল্পই প্রকাশ্যে এনেছে। তবে অ্যাকশনে সেই পুরোনো রজনিজমই ফিরে এসেছে। তাঁর মারমুখী সংলাপ আর শারীরিক ভঙ্গি একইরকম। ছবির বেশিরভাগ অংশ শুট করা হয়েছে মুম্বাইয়ে। ছবিতে আদিত্য অরুণাচলমের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে রজনীকান্তকে, যিনি পুলিশ কমিশনার। এক দৃশ্যে রজনীকে তাঁর অধস্তনদের বলতে শোনা যাচ্ছে, পুলিশ কোনো পেশা নয়। রজনীর ভাষায়, ‘আমরা রক্ষার জন্য বাঁচি, সেবার জন্য মরি।’

‘দরবার’ পরিচালনা করেছেন বিখ্যাত নির্মাতা এ আর মুরুগাদোস, ছবিটি আগামী বছরের পোঙ্গাল উৎসব ঘিরে মুক্তি দেওয়া হবে। এর আগে ‘গজিনি’ ও ‘কাত্থি’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছেন রজনীকান্ত-মুরুগাদোস।

মুরুগাদোসের প্রশংসা করে এর আগে রজনীকান্ত বলেছেন, “এ আর মুরুগাদোস ছাড়া আর কেউ এ ছবি নির্মাণ করবে, সেটি আমরা ভাবতেও পারিনি। আমি ওর ‘রমানা’ ও ‘গজিনি’ ছবি ভালোবাসি। অনেক দিন ধরেই চেয়েছিলাম ওর সঙ্গে কাজ করি। যখন ‘কাবালি’ ও ‘কালা’ নির্মাণ চলছিল, তখনই আমাকে পুলিশ কর্মকর্তার গল্পটি বলেছিল ও।”

২৫ বছর পর ‘দরবার’ ছবির মাধ্যমে পুলিশের ভূমিকায় অবতীর্ণ হচ্ছেন মেগাস্টার রজনীকান্ত। সবশেষ তাঁকে তামিল ছবি ‘পন্ডিয়ান’-এ পুলিশের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায়।

দরবার প্রযোজনা করছে লিসা প্রডাকশনস। এতে আরো অভিনয় করেছেন নয়নতারা, সুনীল শেঠি, প্রতীক বাবর, নিবিতা থমাস ও যোগী বাবু। সংগীত পরিচালনা করেছেন অনিরুদ্ধ রবিচন্দর। সিনেমাটোগ্রাফি সন্তোষ সিবানের।